প্রানঘাতী করোনা ভাইরাসে মানুষের জনজীবন এর বর্তমান পরিস্থিতি।

0
10

করোনা ভাইরাসে মানুষের জনজীবন

২০১৯ সালের শেষ দিকে চীনের উহান প্রদেশ থেকে ছড়াতে ছড়াতে বৈশ্বিক মহামারী রুপ নিয়েছে প্রানঘাতী ভাইরাস COVID-19. and
ভাইরাসের প্রভাব এতটাই বেরেছে যে পুরো বিশ্ব থমকে গেছে। so
ক্ষমতাধর রাষ্ট্র থেকে ক্ষুদ্র রাষ্ট্র গুলিও ছাড় পায়নি এই ভাইরাসের প্রকোপ থেকে। Because
এই ভাইরাসে আক্রান্ত Because হলে শ্বাসকষ্ট গলা ব্যাথা জ্বর ও ঠান্ডা অনুভূত হয় and
রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি হলে কেবল বাঁচার সম্ভাবনা বেশি। and
করোনা উপসর্গে আক্রান্ত রোগীর শরিরে অক্সিজেন সংকট দেখা দেয়।

এই সময় অক্সিজেন সরবরাহ পর্যাপ্ত পরিমান থাকলেও বেঁচে থাকার সম্ভাবনা বেশি। but
এই ভাইরাসে আক্রান্ত হলে চিকিৎসা খরচ Because বেশ ব্যায়বহুল যা অনেকের পক্ষেই
জোগান দেয়া বেশ Because কষ্টসাধ্য ব্যাপার হিয়ে দাঁড়ায়। so
এই ভাইরাসের আক্রমণ so থেকে বাঁচার জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে
সামাজিক দুরত্ব বজায় but রেখে স্বাস্থবিধী মেনে and
মাস্ক পরে চলাচল করলে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা খুব কম।

সারা বিশ্বে কয়েক লাখ মানুষের আক্রমণ হয়েছে অ্যান্ড বিশ্বে মৃত্যুও হয়েছে কয়েক লাখ মানুষের

সারা বিশ্বে কয়েক লাখ মানুষের আক্রমণ হয়েছে অ্যান্ড বিশ্বে মৃত্যুও হয়েছে কয়েক লাখ মানুষের। but
যদিও মানুষের so মানুষের দূরত্ব মানার প্রবনতা দেখা যায়না তেমন। and দিনের পর দিন লকডাউন দিয়েও মানানো যাচ্ছেনা
কিছু দেশের but জনগনকে অতি স্বাভাবিক ভাবেই Because জীবনযাপন করা এদের অনেক আছেন
গরিব কৃষক রিক্সা ওয়ালা সহ দিন আনা দিন খাওয়া মানুষ যাদের অধিকাংশ আছে হতদরিদ্র।
so যেখানে বিশ্বের ক্ষমতাসম্পন্ন শক্তিধর দেশ গুলিই থমকে গেছে সেখানে তুলনামূলক ভাবে
হতদরিদ্র দেশ গুলি বেশিই নাজেহাল হয়ে পরেছে ভাইরাস প্রভাবের কারনে।

Because হয়তো এরা Because করোনা আক্রমনে মৃত্যুবরন করবে নয়তো ক্ষুধার যন্ত্রনায় মারা যাবে।
and আগে থেকে অসুস্থ কিংবা বয়স্ক ব্যাক্তির জন্যে এই ভাইরাসে আক্রমণের আশংকা রয়েছে বেশি।
COVID19 বা করোনা ভাইরাস so বিরোধী কোনো টিকা বা ঔষধ এখন পর্যন্ত বের হয়নি। and
পুরোনো লোককথা মতে প্রতি শতাব্দীতে একেকটি মহামারি আসে যা জনবলের জন্য বেশ ভয়ার্ত ঘটনা। and
প্রতি মহামারীতেই লাখ লাখ মানুষের মৃত্যুর ঘটনা রয়েছে। and বর্তমানে করোনা ভাইরাসের আক্রমন কোনোক্রমেই ঠেকানো যাচ্ছেনা।

বিজ্ঞানিদের দেয়া নাম COVID19 শুরু হওয়া থেকে কয়েক মাসের মধ্যেই তীব্র মৃত্যু আর আক্রমন
দিয়ে বিস্তার ঘটায় Because পার্শ্ববর্তী দেশ সহ পুরো বিশ্বে। and
বিশ্বে সর্বোচ্চ মৃত্যু ও আক্রান্ত নিয়ে তালিকার শীর্ষে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।
৩২ লাখ মানুষের জীবন কেড়ে নেওয়া ভাইরাসটি গত শুক্রবার পর্যন্ত কেবল যুক্তরাষ্ট্রের
মানুষই আক্রান্ত করেছে ৩ কোটি ২৩ লাখের Because কাছাকাছি মানুষের। and
মারা গেছে পৌনে ৬ লাখ মানুষ।and যুক্তরাষ্ট্রের পরই রয়েছে ভারতের স্থান,
ভাইরাসটি ভারতে আক্রমন করে আক্রান্ত করেছে ১ কোটি ৮৩ লাখেরও বেশি মানুষের and
মৃত্যু হয়েছে দুই Because লাখেরও বেশি মানুষের। so

লকডাউনে বিপর্যস্ত অনেক দেশেই বিপর্যয় ডেকে আনছে করোনা নামক ভাইরাসটি। Because
লকডাউনে কোনো দেশের আক্রান্তের হার কমালেও মৃত্যু আর আক্রান্তের হার বেড়ে গেছে অনেক দেশেই। and
বাংলাদেশে সর্বশেষ ২৪ ঘন্টায় ৪৮০৪ জন আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১৩৯ জন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here